প্রাথমিকে নিয়োগ পাবেন ৪০ হাজার শিক্ষক

0
4

ঢাকা: করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে আগামী সেপ্টেম্বর মাসেই শুরু হবে প্রাক-প্রাথমিক ও প্রাথমিক বিদ্যালয়ে নিয়োগ কার্যক্রম। সারাদেশে ২৬ হাজার প্রাক-প্রাথমিক ও ১৪ হাজার সহকারী মিলে মোট ৪০ হাজার শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হবে। এ লক্ষ্যে কাজ শুরু করেছে সরকার।

বিষয়টি নিশ্চিত করেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব আকরাম-আল-হোসেন। তিনি জানান, বর্তমানে সারাদেশে প্রাক-প্রাথমিক স্তরে ২৬ হাজার শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হবে।

সচিব বলেন, দেশের সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রায় ১৪ হাজার সহকারী শিক্ষকের পদ শূন্য রয়েছে। এসব বিদ্যালয়ে নতুন করে শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হবে। সব মিলিয়ে একত্রে ৪০ হাজার শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু করতে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরকে (ডিপিই) নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, পর্যায়ক্রমে দেশের ৬৫ হাজার ৬২০টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এ স্তরে শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হবে। এরইমধ্যে নতুন ২৬ হাজার শিক্ষকের পদ প্রাক-প্রাথমিক স্তরে সৃজন করতে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে প্রস্তাব পাঠানো হয়। কেবিনেট সভায় এটি অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

যেহেতু প্রতিটি বিদ্যালয়ে একজন করে প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষকের পদ সৃজন করা হয়েছে, তাই দ্রুত সময়ের মধ্যে শিক্ষক নিয়োগ কার্যক্রম শুরু করা হবে বলেও জানান তিনি।

প্রসঙ্গত, প্রধানমন্ত্রীর কাছে গত ১৬ জুন প্রাক-প্রাথমিকের সময়সীমা দুই বছর ও ভর্তির ক্ষেত্রে চার বছর বয়সসীমা করে প্রস্তাব পাঠায় প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রাক-প্রাথমিক স্তরে পাঁচ বছরের বেশি বয়সী শিশুদের জন্য এক বছর মেয়াদি শিক্ষা প্রদান করা হচ্ছে।

এ স্তরে অর্জিত সাফল্য ও অভিজ্ঞতা অর্জনে চার বছরের বেশি বয়সী শিশুদের জন্য দুই বছর মেয়াদি করতে একটি প্রস্তাব প্রধানমন্ত্রীর কাছে পাঠানো হয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে এই প্রস্তাবের অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এ স্তরে শিক্ষক নিয়োগ কার্যক্রম বর্তমানে শুরু হতে যাচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here