Home Featured left

by Channel 52us 52us
60 views

ভিয়েতনামে ভয়াবহ ঘূর্ণিঝড়ে অন্তত ২৫ জন প্রাণ হারিয়েছেন। হতাহতের সংখ্যা বাড়ছে।

ঘূর্ণিঝড় মোলাভি ও প্রবল বৃষ্টিতে সৃষ্ট ভূমিধসে এখনো অনেকে নিখোঁজ রয়েছেন। আজ বৃহস্পতিবার হতাহত ব্যক্তিদের উদ্ধারে সেনাবাহিনী ও ভারী যন্ত্রপাতি ব্যবহার শুরু করে ভিয়েতনাম। গত এক দশকের মধ্যে ঘূর্ণিঝড় মোলাভিকে এই অঞ্চলের সবচেয়ে ভয়াবহ ঘূর্ণিঝড় বলা হচ্ছে।

গতকাল বুধবার ভিয়েতনামের কুয়ান নাম রাজ্যের প্রত্যন্ত অঞ্চলে সৃষ্ট ভূমিধসে ১৩ জন মারা গেছেন। নিখোঁজ রয়েছেন ৪০ জন। বাজে আবহাওয়ার জন্য সেখানে উদ্ধারকাজ চালানো যাচ্ছে না। দেশটির রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমে বলা হয়েছে, ভূমিধস ছাড়াও ঘূর্ণিঝড়ে সাগরে ১২ জেলে মারা গেছেন।

রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে বলা হচ্ছে, আজ বৃহস্পতিবার ১২ জেলের মৃতদেহ পাওয়া গেছে। সাগরে তাঁদের নৌকাডুবির ঘটনা ঘটেছে। এখনো ১৪ জন নিখোঁজ রয়েছেন। নৌবাহিনীর দুটি জাহাজ উদ্ধারকাজ চালাচ্ছে।

এই নিয়ে চলতি মাসে টানা চারবার ঝড় আঘাত হানল ভিয়েতনামে। ঝড়ের কারণে কর্তৃপক্ষ তিন লাখ ৭৫ হাজার মানুষকে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নিয়ে যায়। ঘূর্ণিঝড় মোলাভির ফলে কয়েক লাখ মানুষ বিদ্যুৎহীন অবস্থায় পড়েছেন। ৫৬ হাজার ঘরবাড়ির ক্ষতি হয়েছে। গতকাল বুধবার ভিয়েতনামে আঘাত হানার পর এটি দুর্বল হয়ে লাওসের দিকে যাচ্ছে। এর আগে এটি ফিলিপাইনে আঘাত হেনেছিল। সেখানে ১৬ জন মারা গেছেন।

দেশটির উপ-প্রধানমন্ত্রী ত্রিঞ্চ দিঞ্চ ডাং বলেন, এটি ভয়াবহ দুর্ঘটনা। বহু মানুষ কাদামাটির নিচে চাপা পড়েছে। তাদের উদ্ধারে বেগ পেতে হচ্ছে।

You may also like

Leave a Comment