৮ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, রাত ৮:৩৮, সোমবার

  • বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी

নওয়াজ শরিফকে নতুন পাসপোর্ট ইস্যু করেছে পাকিস্তানের কেন্দ্রীয় সরকার
রিপোর্টারের নাম / ৭১ বার
আপডেট সময় সোমবার, ০৮ অগাস্ট ২০২২

পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের নাম দেশ ত্যাগের নিষেধাজ্ঞার তালিকা থেকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।লন্ডনে অবস্থান করা পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ জরুরি ক্যাটাগরিতে নতুন পাসপোর্ট দিয়েছে দেশটির ফেডারেল সরকার। সোমবার নওয়াজ শরিফকে দেশে ফিরতে নতুন পাসপোর্ট দিয়েছে।পাকিস্তানের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সূত্রমতে, নওয়াজ শরিফকে দেওয়া নতুন পাসপোর্টটি ১০ বছর মেয়াদি।

পাকিস্তানের অভিবাসন ও পাসপোর্ট দপ্তরে নওয়াজ শরিফের পাসপোর্ট বর্তমানে ‘সক্রিয়’ দেখাচ্ছে। আগে কূটনৈতিক পাসপোর্ট ছিল নওয়াজ শরিফের। গত এক বছর ধরে সেটি নবায়ন নিয়ে জটিলতায় পড়েছিলেন নওয়াজ শরিফ। পাকিস্তানের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা জানান, সাধারণ পাসপোর্টের আবেদন করেছিলেন নওয়াজ শরিফ। এখন তাকে সেটাই দেওয়া হয়েছে।

এর আগে গত মঙ্গলবার দেশটির নতুন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রানা সানাউল্লাহ বলেছিলেন, কূটনৈতিক পাসপোর্ট নওয়াজ শরিফের অধিকার এবং খুব শিগগির তা ইস্যু করা হবে।

শাহবাজ শরিফের নতুন মন্ত্রিসভার সদস্য হিসেবে শপথ নেওয়ার পর স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী দুঃখ প্রকাশ করে বলেছিলেন, এটি খুবই দুর্ভাগ্যজনক, যে ব্যক্তি তিনবারের প্রধানমন্ত্রী তাকে নাগরিকত্ব থেকে বঞ্চিত করা হয়েছে।

চলতি মাসের শুরুর দিকে পাকিস্তান মুসলিম লিগ-নওয়াজের (পিএমএল-এন) নেতা মিয়া জাভেদ লতিফ বলেন, পবিত্র ঈদুল ফিতরের পর নওয়াজ দেশে ফিরে আসবেন বলে তাঁরা আশা করছেন।

তবে পিএমএল-এনের সর্বোচ্চ নেতার দেশে ফেরা সম্পর্কে সুস্পষ্ট কোনো মন্তব্য করেননি নওয়াজের মুখপাত্র মুহাম্মদ জুবায়ের। তিনি বলেছেন, এটি একটি সংবেদনশীল বিষয়। এ বিষয়ে এখনই মন্তব্য করা যাবে না।

দুর্নীতির মামলায় সাজাপ্রাপ্ত নওয়াজ শরিফ ২০১৯ সালের অক্টোবরে চিকিৎসার জন্য আট সপ্তাহের জামিন পান। এক মাস পর চার সপ্তাহের জন্য তাকে বিদেশ যেতে দেওয়ার অনুমতি দেওয়া হয়। তবে এখনো তিনি লন্ডনে অবস্থান করছেন।

আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর